২২ মার্চ, ২০১৪

অনুভূতি ধারণে সক্ষম প্রথম বায়োনিক হাত

প্রথমবারের মত স্পর্শানুভূতিসম্পন্ন আঙ্গুলের একটি প্রোস্থেটিক হাতের মাধ্যমে একজন মানুষ হাতে কোন বস্তুর অনুভূতি টের পেলেন। মানুষটি ১০ বছর আগের
একটি দূর্ঘটনায় তার হাত আসল হাত হারান।
গত মাসে তার চোখ বেঁধে পরীক্ষা চালালে দেখা যায়, তিনি হাতে ভিন্ন বস্তুকে শnaক্ত করতে পারছেন।
এটা প্রথম প্রোস্থেটিক হাত যা ত্বকের নিচে স্থাপিত তড়িৎদ্বারের মাধ্যমে ব্যবহারকারীর মস্তিষ্কে সংবেদী তথ্য প্রেরণে সক্ষম হয়েছে। এই আবিষ্কার পাশ্ববর্তী পরিবেশের একটি বাস্তব ও স্পর্শগ্রাহ্য ধারণা দিতে সক্ষম বায়োনিক প্রত্যঙ্গের একটি নতুন ধারায় পৌঁছে দিতে পারে।
সৌভাগ্যবান ব্যক্তিটি হলেন ৩৬ বছর বয়সী ডেনিস আবো সোরেনসেন। ২০০৪ সালে আতশবাজী দূর্ঘটনার শিকার হয়ে তাকে বাম হাত কেটে ফেলতে হয়। তিনি বলেন, “ প্রোস্থেটিক অঙ্গটির মাধ্যমে তিনি আসল হাত হারানোর পর প্রথমবারের মত বস্তুর অনুভূতি গ্রহণ করতে পেরেছেন।
আশা করা হচ্ছে পরবর্তী ইমপ্ল্যান্ট দুই বছরের মধ্যে প্রস্তুত হবে। এতে বাহুতে তড়িৎদ্বার (electrode) স্থাপন করা হবে এবং এটার কার্যকাল আরো দীর্ঘমেয়াদী হবে যেমন কয়েক মাস এমনকি বছরনাগাদ। এমনকি এটা হবে বহনযোগ্য (Portable)। এমনটাই বললেন সুইজারল্যান্ডের অধ্যাপক সিল্ভেস্ট্রো মিকেরা।
বিজ্ঞানের সর্বশেষ খোঁজখবর রাখতে এই লিঙ্ক ফলো করুন। 

Abdullah Al Mahmud

লেখকের পরিচয়

আব্দুল্যাহ আদিল মাহমুদ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষার্থী। অনলাইনে লেখালেখির হাতেখড়ি হলেও বর্তমানে পাই জিরো টু ইনফিনিটি, ব্যাপন ও প্যাপাইরাসসহ বেশ কিছু ম্যাগাজিন ও পত্রিকায় নিয়মিত লিখছেন। শখ ও ভবিষ্যত পেশাগত টার্গেট জ্যোতির্বিদ্যা ও কোয়ান্টাম গ্র্যাভিটি নিয়ে গবেষণা। বিশ্ব ডট কমের কন্ট্রিবিউটর, সম্পাদক ও প্রকাশক।